রবিবার, ২৯ মে ২০২২, ০৫:০৪ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ :
ঠাকুরগাঁওয়ে ৩টি ক্লিনিক সিলগলা গ্রেপ্তার – ১ জাতীয় সাংবাদিক সংস্থা রাজশাহী বিভাগ’র নবনির্বাচিত কমিটির সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত পুঠিয়ায় ৭৬২ কেজি ভেজাল গুড় জব্দ, গ্রেফতার-৭ আত্রাইয়ে যত্রতত্র অবৈধভাবে ব্যাঙের ছাতার মতো গড়ে উঠেছে ক্লিনিক বাগমারার গোয়ালকান্দি ইউপিতে ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের কার্যকরি কমিটির সভা অনুষ্ঠিত নওগাঁর আত্রাইয়ে চাঞ্চল্যকর চুরির ঘটনায় আটক-১ আসল কারখানায় নকল ক্যাবল, জরিমানা ২ লাখ রানীশংকৈলে বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত পুঠিয়ায় কোভিড-১৯ প্রতিরোধ অবহিতকরন সভা অনুষ্ঠিত কেশরহাট পৌর বিএনপির সভাপতি হতে চান সাবেক মেয়র আলো
সচেতনার অভাবে স্বাস্থ্যঝুঁকিতে আত্রাইয়ের কৃষক

সচেতনার অভাবে স্বাস্থ্যঝুঁকিতে আত্রাইয়ের কৃষক

সামসুজ্জামান (সেন্টু) আত্রাই (নওগাঁ) প্রতিনিধিঃ উত্তরাঞ্চলের খাদ্য ভান্ডার হিসেবে পরিচিত ন‌ওগাঁ জেলার আত্রাই উপজেলা দেশের খাদ্য চাহিদা পূরণে দীর্ঘদিন ধরে ব্যাপক ভাবে ভূমিকা পালন করে আসছে। আর এই খাদ্য পূরণ করতে গিয়ে সঠিক পরামর্শের অভাবে নিরাপদ পদ্ধতিতে কীটনাশক ব্যবহার না করায় স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে রয়েছেন উপজেলার কৃষকরা।

উপজেলায় এখন ইরি বোরো মৌসুম এই সময় উপজেলার দিগন্ত জুড়ে যে দিকে তাকাই সবুজ আর সবুজ। উপজেলার কৃষকরা ধান, গম, ভূট্টা সবজি সহ বার মাস বিভিন্ন ধরনের ফসল চাষ আবাদ করে থাকে। এবং সেই সব ফসলে রোগ বালাই ও পোকা মাকড়ের হাত থেকে রক্ষা পেতে খেতে বিভিন্ন প্রকার কীটনাশক ব্যবহার করে থাকেন।

উপজেলার মনিয়ারী ইউনিয়নের কচুয়া গ্রামের কৃষক আব্দুল কাদের বলেন, আমি দীর্ঘদিন ধরে জমি চাষাবাদ করে আসছি। এবং চারা রোপণ থেকে শুরু করে বিভিন্ন সময় ফসলে পোকার আক্রমণ থেকে রক্ষা করতে জমিতে বিভিন্ন ধরনের কীটনাশক ব্যবহার করে থাকি।

উপজেলার পাঁচুপুর ইউনিয়নের এলাকার কৃষক মোঃ বাবু বলেন, আমি নিজে ১৬ বিঘা জমি আবাদ করি। বেশি জমিতে এক সাথে কীটনাশক প্রয়োগ করার সময় আমি পাওয়ার স্প্রে ব্যবহার করে থাকি।

কীটনাশক প্রয়োগের ব্যাপারে কতটুকু সচেতন প্রশ্ন করা হলে তারা বলেন, কীটনাশক প্রয়োগের সঠিক কোন পদ্ধতি আমার জানা নেই। বা আমাদের কেউ পরামর্শও দেয়নি। ফসলে কীটনাশক প্রয়োগের সময় খুবই দুর্গন্ধ হয়। এবং কীটনাশক প্রয়োগের পর প্রচণ্ড মাথা ঘোরা সহ বিভিন্ন ধরনের সমস্যা দেখা দেয়।

এ ব্যাপারে আত্রাই উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ রোকসানা হ্যাপি বলছেন, ফসলে কীটনাশক ব্যবহারের সময় নাক-মুখে মাস্ক ও হাতে গ্লোবস ব্যবহার করা জরুরি। কীটনাশক ব্যবহারের সময় নিরাপদ পোশাক ব্যবহার না করলে নাক ও মুখ দিয়ে বিষ শরীরের ভেতরে প্রবেশ করে বিষক্রিয়া হতে পারে। এতে মৃত্যুর সম্ভাবনাও রয়েছে।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কে এম কাউছার হোসেন জানান, আমরা কৃষকদের জমিতে কীটনাশক ব্যবহার থেকে বিরত থাকার জন্য পরামর্শ দিয়ে আসছি। জমিতে কীটনাশক ব্যবহারে জমির উর্বরা শক্তি কমে যায়। জমিতে কীটনাশক ব্যবহারে কৃষকদের সচেতন করতে মাঠ পর্যায়ে আমাদের কর্মীরা কাজ করছে। এবং জমিতে আলোক ফাঁদ ব্যবহার পদ্ধতির বিষয়ে পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে।

ফেসবুকে সংবাদটি শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2017 আলোকিত ভোরের বার্তা
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com