শনিবার, ০১ অক্টোবর ২০২২, ০২:৩৭ অপরাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ :
বাগমারার রামরামা বরজপাড়া থেকে কুখ্যাত মাদক ব্যাবসায়ী আনোয়ার ৫১৫ পিছ ইযাবা সহ পুলিশের হাতে আটক আমতলী সাংবাদিক ক্লাব ও উপজেলা প্রেস ক্লাবের যৌথ সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত চারঘাটে ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীদের ধর্মীয় গীর্জা নির্মান প্রকল্পের শুভ উদ্বোধন বাঘায় বিট পুলিশিং সমাবেশ অনুষ্ঠিত আরএমপি কর্ণহার থানা এর উদ্দ‍্যোগে শারদীয় দূর্গাপূজার সম্প্রতি সমাবেশ অনুষ্ঠিত রাজশাহীতে চাকরির আশায় যুবক নিঃশ্ব প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ ও ব্যাখ্যা রাজশাহীতে চাকরি ছাড়ার ১ বছর পরে মামলা করে অর্থ দাবি নাসিরনগর দুর্গাপূজা উপলক্ষে জি,আর(চাল) বিতরণ চারঘাটে প্রতিমায় রং তুলির আচঁড়ে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন কারিগররা তিতাসে খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির ১৫ টাকা কেজি দরে চাউল বিতরণে অনিয়ম
নানা অব্যবস্থাপনায় পরিচালিত হচ্ছে আত্রাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে

নানা অব্যবস্থাপনায় পরিচালিত হচ্ছে আত্রাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে

আত্রাই উপজেলা প্রতিনিধিঃ- ন‌ওগাঁর আত্রাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্মকর্তা ডা‍ঃ রোকসানা হ্যাপির বিরুদ্ধে হাসপাতাল পরিচালনায় ব্যার্থতার অভিযোগ উঠেছে।

তিনি ২০১৯ সালের ৩১ ডিসেম্বর আত্রাই উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা (টিএইচও) হিসেবে যোগদান করেন। যোগদানের পর কিছু দিন ভালো ভাবে হাসপাতাল পরিচালনা করলেও ধীরে ধীরে তার গাফিলতি সামনে আসতে থাকে।

তার বিরুদ্ধে গত ১৯ আগষ্ট ২০২১ ইং তারিখে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সংরক্ষিত এলাকা থেকে ১টি বড় রেন্ট্রি কড়াইয়ের গাছ কাঁটার অভিযোগ আছে। তিনি উপজেলার পাঁচুপুর ইউনিয়নের বিহারিপুর গ্রামের মোঃ লতিফকে মৌখিক অনুমতি দিয়ে গাছটি কেটে ফেলে। সে সময় গাছ কাটার বিষয়ে বিভিন্ন পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশ হয়েছিল।

গত ৫ জানুয়ারী ২০২২ ইং তারিখে হাসপাতালের অফিসের গ্ৰীল কেটে চুরি হয়। তবে সেদিন অফিসের আলমারিতে ল্যাপটপসহ দামি ইলেকট্রনিক ডিভাইস, ঔষধ ও টাকা থাকলেও শুধুমাত্র অফিসের গুরুত্বপূর্ণ কাগজ চুরি করে নিয়ে যায় চোরেরা।

এছাড়া ঔষধ বন্টনের অনিয়ম, হাসপাতালে পর্যাপ্ত পরিমাণে ঔষধ না থাকা, তার স্বামীকে দিয়ে হাসপাতালের অফিস, ডাক্তার ও স্টাফদের তদারকি করানোসহ বিস্তর অভিযোগ আছে।

তিনি সরকারি কাজে ব্যবহৃত গাড়ি নিজ পারিবারিক কাজে ব্যবহার করতেন সে বিষয়ে ইতোপূর্বে সংবাদ প্রকাশ হ‌য়েছে বিভিন্ন পত্রিকায়।

গত ৩ জুলাই ২০২২ ইং তারিখে প্রসুতি মা বাচ্চা হ‌ওয়ার জন্য স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হয়। তবে ৫ জুলাই তার সাথে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ খারাপ ব্যবহার করে কমপ্লেক্সে থেকে বের করে দেয়। এবিষয়ে পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশ হ‌য়েছে।

সর্বশেষ গত ১০ জুলাই আলী আহসান নামের তিন বছরের একটি বাচ্চার চিকিৎসাপত্রে এইস সিরাপ (২৫০ এমজি) জ্বর হলে মলদ্বারে নিতে নির্দেশ দেওয়া আছে। মূলত বাচ্চাদের জ্বর হ‌ইলে সাপোজিটার দেওয়ার নিয়ম আছে।

এক‌ই দিনে মোহাম্মদ আলী নামের ৪ বছরের একটি বাচ্চার চিকিৎসাপত্রে এন্টিবায়েটিক ঔষধ এ্যাজিন (৫০) চার বার দের চামচ করে দেয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। ঔষধ নির্দেশিকায় ৭ বছরের নিচে বাচ্চাদের এক চামচের বেশি এই সিরাপ সেবনে মৃত্যু ঝুঁকি পর্যন্ত আছে। সেখানে একজন ডাঃ কিভাবে চার বার দের চামচ করে ৪ বছরের বাচ্চাকে দেয় এটা বোধগম্য নয়। এবিষয়ে জনমনে বিরূপ প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে।

ফেসবুকে সংবাদটি শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2017 আলোকিত ভোরের বার্তা
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com