শুক্রবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২২, ১০:২২ অপরাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদ :
বিএনপি জামাতের সন্ত্রাস ও নৈরাজ্যের প্রতিবাদে যুবলীগের বিভিন্ন কর্মসূচি ঘোষণা বাগমারায় বেগম রোকেয়া দিবস ও আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ  পালিত তিতাসের পীর শাহবাজ ক্রিকেট টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত তিতাসে আন্তর্জাতিক দুর্ণীতি বিরোধী দিবস পালিত নাসিরনগরে” আন্তর্জাতিক দুর্নীতি বিরোধী দিবস” পালিত নাসিরনগরে “আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ ও বেগম রোকেয়া দিবস” উদযাপন ২০২৪ সালের প্রথম সপ্তাহে নির্বাচন সকল জীবন বীমা কোম্পানিতে ‘বঙ্গবন্ধু শিক্ষা বীমা’ চালুর নির্দেশ ৭ বছর পর দেশের মাটিতে সিরিজ জয় ৩ ইসলামী ব্যাংকের কেলেঙ্কারি তদন্ত করবে দুদক
জিন সেজে নারীর টাকা আত্মসাৎ, অতপর চন্দ্রিমা থানা পুলিশের জালে আটক

জিন সেজে নারীর টাকা আত্মসাৎ, অতপর চন্দ্রিমা থানা পুলিশের জালে আটক

মোঃ সুমন, রাজশাহীঃ সুকৌশলে জীন সেজে প্রতারণার মাধ্যমে এক নারীর তিন লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগে অভিযুক্ত জীনের বাদশাকে আটক করেছে রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের চন্দ্রিমা থানা পুলিশ।

গত ২৩ নভেম্বর (বুধবার) ঢাকার ডেমরা থানা এলাকার শুকরশী খালপাড়া থেকে মানুষরুপি সেই জীন সবুজ মিয়াকে (২৫) গ্রেফতার করেন চন্দ্রীমা থানা পুলিশের একটি চোকস টিম। এ সময় ডিএমপি’র (এপিবিএন) পুলিশ অভিযানে সহযোগিতা করেন।

অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, টিভির একটি বিজ্ঞাপনের ভিডিওতে সুকৌশলে সবুজ মিয়া তার নিজস্ব মোবাইল নম্বর যোগ করেন। সেই ভিডিও ফুটেজ বিভিন্ন সামাজিক মাধ্যমে ভাইরাল করেন সেই প্রতারক জিনের বাদশা। সে ফুটেজে দেওয়া নম্বরে ফোন দিয়ে প্রতারণার শিকার হন রাজশাহী মহানগরীর পদ্মা আবাসিক এলাকার মনতাজুর রহমানের স্ত্রী জেসমিন আলম (৫৬)। কয়েক ধাপে সবুজ মিয়া নামে উক্ত জীনের সঙ্গে কথা বলে প্রায় তিন লক্ষ টাকা দেন বলে জানান ঐ নারী।

অভিযানে নেতৃত্ব দেওয়া চন্দ্রিমা থানার উপ-পুলিশ পরিদর্শক ও তালাইমারী ফাঁড়ির ইনচার্জ এ টি এম আশেকুল ইসলাম বলেন, বাদীর অভিযোগ পেয়ে তথ্য প্রযুক্তির সহায়তার মাধ্যমে অভিযুক্ত সবুজ মিয়াকে সনাক্ত করা হয়। এরপর অভিযুক্ত জীন পরিচয় দানকারী সবুজ মিয়াকে ডিএমপি’র এপিবিএন এর সহায়তায় ডেমরা থেকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতার সবুজ প্রতারণার দায় শিকার করেন। পরে তাকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

ভুক্তভোগী জেসমিন বলেন, আমি দীর্ঘদিন যাবৎ পারিবারিক সমস্যায় ভুগছিলাম। সে কারণে টিভিতে সমস্যা সমাধানের একটি বিজ্ঞাপন দেখতে পাই। সেই বিজ্ঞাপনের ভিডিওতে প্রতারক সবুজ তার মোবাইল নম্বর যোগ করেন। এরপর কণ্ঠ পরিবর্তন করে বিভিন্ন নম্বর থেকে নিজেকে কামরুখ কামাক্ষা জীন সেজে কথা বলেন। সমস্যা সমাধানে বিভিন্ন প্রলোভন দেখিয়ে কয়েক দফায় বিভিন্ন অজুহাতে প্রায় তিন লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেয় সে। পরে তার মোবাইলটি বন্ধ করে দেন। এরপর পরিবারের সঙ্গে আলোচনা করলে বুঝতে পারি আমি প্রতারিত হয়েছি।

আটক সবুজ মিয়া ভোলা জেলার লালমোহন থানা এলাকার গাজী বাড়ি গ্রামের নান্টু মিয়া’র ছেলে।

জানতে চাইলে চন্দ্রীমা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ ইমরান হোসেন বলেন, অভিনব কায়দায় নিজেকে জীন পরিচয় দিয়ে এক নারীর সঙ্গে প্রতারণার মাধ্যমে ৩ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেন। অভিযোগ পেয়ে তদন্ত পূর্বক আসামী সবুজকে আটক করা হয়। আটকের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে বলে জানান তিনি।

ফেসবুকে সংবাদটি শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2017 আলোকিত ভোরের বার্তা
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com