বৃহস্পতিবার, ০২ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৮:০২ অপরাহ্ন

বাগমারায় হত্যাচেষ্টার মামলায় চেয়ারম্যান সাফি গ্রেপ্তার

বাগমারায় হত্যাচেষ্টার মামলায় চেয়ারম্যান সাফি গ্রেপ্তার

বাগমারা প্রতিনিধি
রাজশাহীর বাগমারায় সামসুদ্দীন প্রামানিক নামে এক কৃষককে হত্যাচেষ্টার মামলায় আউচপাড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সাফিকুল ইসলাম সাফিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার উপজেলার ভবানীগঞ্জ বাজারে অভিযান চালিয়ে চেয়ারম্যান সাফিকে গ্রেপ্তার করেছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। গত রবিবার বেলা ১১ টার দিকে উপজেলার আউচপাড়া ইউনিয়নের বিষ্ণপুর গ্রামের কৃষক সামসুদ্দীন প্রামানিককে জোর পূর্বক তুলে নিয়ে যায় চেয়ারম্যান সাফি সহ তার লোকজন। পরে চেয়ারম্যান সাফিকুল ইসলাম সাফি কৃষক শামসুদ্দীন প্রামানিকের উপরে অতর্কিত হামলা চালায়। এ সময় চাপাতি দিয়ে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে রক্তাক্ত জখম করে। সেই সাথে লোহার রড দিয়ে পা সহ শরীরের বিভিন্ন স্থান ভেঙ্গে দেয়।

পরে সামসুদ্দীন প্রামানিককে গুরুতর আহত অবস্থায় স্থানীরা উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে। ওই ঘটনায় আহত সামসুদ্দীন প্রামানিকের পরিবারের পক্ষ থেকে বাগমারা থানা একটি সাধারণ ডায়রি করা হয়। মঙ্গলবার সামসুদ্দীনের ছেলে নাজমুল ইসলাম বাদী হয়ে হত্যাচেষ্টার ঘটনার মূলহোতা চেয়ারম্যান সাফিকুল ইসলাম সাফি সহ কয়েক জনের নাম উল্লেখ সহ অজ্ঞাত ৪/৫ জনের নামে বাগমারা থানায় হত্যাচেষ্টা ও নির্যাতনের মামলা দায়ের করে। ওই মামলার প্রধান আসামি চেয়ারম্যান সাফিকুল ইসলাম সাফিকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

মামলা ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, প্রায় ৮ বছর আগে বিষ্ণপুর গ্রামের জুয়েল রানা কৃষকদের নিটক থেকে ধানের জমি লীজ নিয়ে ইট ভাটা নির্মাণ করে। পরে সেটা চেয়ারম্যান সাফির নিকট বিক্রয় করে দেয়। সেই ভাটার জন্য নতুন করে চেয়ারম্যান কৃষকের নিকট থেকে জমি লীজ গ্রহণ করছেন। ওই স্থানে সামসুদ্দীন প্রামানিকের কিছু ধানের জমি আছে। তিনি সেই জমি সাফির নিকট লীজ প্রদান করবেন না। অন্যরা দিলে কেন সে দিবে না এমন ঘটনায় কৃষক সামসুদ্দীনের উপরে হামলা চালানো হয়েছে বলে জানাগেছে। তবে সময় মতো জমির মালিকদের লীজের টাকা পরিশোধ করেন না বলে অভিযোগ করেন স্থানীয় লোকজন। বছরে ২০ হাজার টাকা চূক্তিতে কৃষকের নিকট থেকে ইট ভাটার জন্য জমি লীজ নেয়া হয়েছে। সাত বছরের জন্য জমি লীজ দেয়া হলেও মেয়াদ পার হওয়ার পরও টাকা পরিশোধ করা হচ্ছে না বলেও জানিয়েন লোকজন। জমি বন্ধক না রাখায় শামসুদ্দিন প্রামানিককে তুলে নিয়ে চেয়ারম্যানসহ ভাটার লোকজন হত্যাচেষ্টা চালায়।

এ ঘটনায় বাগমারা থানার ওসি (তদন্ত) তৌহিদুর রহমানের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, হত্যাচেষ্টা ও মারপিটের ঘটনায় দায়ের করা মামলায় চেয়ারম্যান সাফিকুল ইসলাম শাফিকে গ্র্রেপ্তার করা হয়েছে। বুধবার আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হবে। ওই মামলায় অন্য আসামীদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

 

ফেসবুকে সংবাদটি শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2017 আলোকিত ভোরের বার্তা
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com