বৃহস্পতিবার, ০২ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৮:৫১ অপরাহ্ন

বাংলাদেশের উন্নয়ন দেখতে আসছেন বিশ্বব্যাংকের এমডি

বাংলাদেশের উন্নয়ন দেখতে আসছেন বিশ্বব্যাংকের এমডি

 

শনিবার দুপরে তিনি ঢাকায় এসে পৌঁছাবেন। বাংলাদেশে এটিই তার প্রথম আনুষ্ঠানিক সফর। তিন দিনের এই সফরে ট্রটসেনবার্গ বাংলাদেশ এবং বিশ্বব্যাংকের মধ্যে অংশীদারিত্ব সম্পর্কের ৫০ বছরপূর্তি এবং বাংলাদেশের উল্লেখযোগ্য উন্নয়ন অর্জন উদযাপন অনুষ্ঠানে অংশ নেবেন।

বাংলাদেশের উন্নয়ন নিজ চোখে দেখতে বিশ্ব আর্থিক খাতের মোড়ল সংস্থা বিশ্বব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) অ্যাক্সেল ভ্যান ট্রটসেনবার্গ ঢাকায় আসছেন।

শনিবার দুপরে তিনি ঢাকায় এসে পৌঁছাবেন। বাংলাদেশে এটিই তার প্রথম আনুষ্ঠানিক সফর। তিন দিনের এই সফরে ট্রটসেনবার্গ বাংলাদেশ এবং বিশ্বব্যাংকের মধ্যে অংশীদারিত্ব সম্পর্কের ৫০ বছরপূর্তি এবং বাংলাদেশের উল্লেখযোগ্য উন্নয়ন অর্জন উদযাপন অনুষ্ঠানে অংশ নেবেন।

শুক্রবার বিশ্বব্যাংক ঢাকা অফিসের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ভন ট্রটসেনবার্গ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল,পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান এবং জ্যেষ্ঠ সরকারি কর্মকর্তা, সুশীল সমাজের প্রতিনিধি ও উন্নয়ন অংশীদারদের সঙ্গে বৈঠক করবেন। এ ছাড়া তিনি বিশ্বব্যাংকের সহায়তাপুষ্ট বিভিন্ন প্রকল্প পরিদর্শন করবেন। তার সঙ্গে থাকবেন দক্ষিণ এশিয়া অঞ্চলের বিশ্বব্যাংকের ভাইস প্রেসিডেন্ট মার্টিন রেইজার।

বিশ্বব্যাংক ঢাকা অফিসের জ্যেষ্ঠ এক্সটার্নাল অ্যাফেয়ার্স অফিসার মেহরিন আহমেদ মাহবুব বলেন, ‘বাংলাদেশে অবস্থানকালে অ্যাক্সেল ভ্যান ট্রটসেনবার্গ ঢাকা ও কক্সবাজারে বিশ্বব্যাংকের অর্থায়নে বাস্তবায়িত কয়েকটি উন্নয়ন প্রকল্প পরিদর্শন করবেন।

‘বাংলাদেশ ও বিশ্বব্যাংকের মধ্যে সুন্দর সম্পর্কের ৫০ বছর উদযাপন করতেই মূলত তিনি ঢাকায় আসছেন। একইসঙ্গে তিনি বাংলাদেশের উন্নয়ন কর্মকাণ্ড সরেজমিন পরিদর্শন করবেন।’

২৪ জানুয়ারি রাতে তিনি ঢাকা ছাড়বেন বলে জানান মেহরিন।

ঢাকা সফর উপলক্ষে এক বিবৃতিতে অ্যাক্সেল ভ্যান ট্রটসেনবার্গ বলেন, ‘মানব উন্নয়ন, নারীর ক্ষমতায়ন এবং জলবায়ু অভিযোজনে সফল উদ্ভাবনের মাধ্যমে দারিদ্র্য কমাতে কী করা যেতে পারে তা বাংলাদেশ বিশ্বকে দেখিয়েছে।

‘বিশ্বব্যাংক বাংলাদেশের সাথে তার ৫০ বছরের অংশীদারিত্ব এবং দেশের উল্লেখযোগ্য উন্নয়ন যাত্রার অংশ হিসেবে গর্বিত। আমি আমার সফরের জন্য এবং এই সাফল্যগুলো সরাসরি দেখার জন্য অপেক্ষা করছি।’

 

স্বাধীনতার পর বাংলাদেশকে সহায়তাকারী প্রথম উন্নয়ন সহযোগী বিশ্বব্যাংক। তারপর থেকে এই দাতা সংস্থাটি প্রায় ৩৯ বিলিয়ন ঋণসহায়তা দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। যার বেশিরভাগই অনুদান বা রেয়াতি ঋণের (কম সুদে)। বাংলাদেশে বর্তমানে বিশ্বব্যাংক গ্রুপের ইন্টারন্যাশনাল ডেভেলপমেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের (আইডিএ) বৃহত্তম চলমান কর্মসূচি রয়েছে বলে বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।

 

৫০ বছরপূর্তি অনুষ্ঠান রোববার

বিশ্বব্যাংক ঢাকা অফিসের কর্মকর্তা মেহরিন আহমেদ মাহবুব বলেন, ২২ জানুয়ারি রোববার বেলা ৩টায় বিশ্বব্যাংক এমডি রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে বাংলাদেশ এবং বিশ্বব্যাংকের মধ্যে অংশীদারিত্ব সম্পর্কের ৫০ বছর উদযাপন অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন। তার সঙ্গে থাকবেন সংস্থাটির দক্ষিণ এশিয়া অঞ্চলের ভাইস প্রেসিডেন্ট মার্টিন রেইজার। অর্থ মন্ত্রণালয় ও বিশ্বব্যাংক যৌথভাবে এই উদযাপন অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল, পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান, বিশ্বব্যাংকের বিকল্প নির্বাহী পরিচালক আহমদ কায়কাউস, মেট্রোপলিটন চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির (এমসিসিআই)র সাবেক সভাপতি নিহাদ কবির, গবেষণা সংস্থা পলিসি রিসার্চ ইনস্টিটিউটের (পিআরআই) আহসান এইচ মনসুর এবং বিশ্বব্যাংক গ্রুপের প্রতিষ্ঠান মাল্টিল্যাটারাল ইনভেস্টমেন্ট গ্যারান্টি এজেন্সি’র (মিগা) ভাইস প্রেসিডেন্ট জুনায়েদ কামাল আহমদ বক্তব্য দেবেন।

উদযাপন অনুষ্ঠানের ফাঁকে সম্মেলন কেন্দ্রটির কার্নিভাল হলে বাংলাদেশের অর্থমন্ত্রী এবং বিশ্বব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক যৌথভাবে একটি মাল্টিমিডিয়া ফটো প্রদর্শনী ‘এ জার্নি টুগেদার’ উদ্বোধন করবেন। এই প্রদর্শনীটি ওই দিন রাত ৯টা পর্যন্ত চলবে।

 

সাংবাদিকদের মুখোমুখি হবেন বিশ্বব্যাংক এমডি

রোববার সন্ধ্যা ৫টায় সাংবাদিকদের মুখোমুখি হবেন বিশ্বব্যাংক ব্যবস্থাপনা পরিচালক এক্সেল ভ্যান ট্রটসেনবার্গ। বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রের মিডিয়া বাজারে এই সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে।

সংবাদ সম্মেলনে সংস্থাটির দক্ষিণ এশিয়া অঞ্চলের ভাইস প্রেসিডেন্ট মার্টিন রাইজার এবং বিশ্বব্যাংকের বাংলাদেশ ও ভুটানের কান্ট্রি ডিরেক্টর আবদৌলায়ে সেক উপস্থিত থাকবেন।

 

ফেসবুকে সংবাদটি শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2017 আলোকিত ভোরের বার্তা
Desing & Developed BY ThemesBazar.Com